সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০৬:২৯ অপরাহ্ন
Logo
সংবাদ শিরোনামঃ
ব্রীজ ধসে চলাচলের পথ বন্ধ আগৈলঝাড়ায়,,,,,, জগন্নাথপুরে সুইচগেট সহ নদী, নালা, খাল, বিলের পানি দ্রুত নিস্কাসনের দাবীতে মানববন্ধন প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর ঐতিহাসিক প্লাটিনাম জুবিলী’র ৭৫ তম জয়ন্তী উপলক্ষে বিরামপুরে বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালী বানারীপাড়ায় শিশুর বলৎকার অভিযোগে রফিক নামে গ্রেফতার এক “যুব সমাজকে মাদক ও মোবাইল গেমিং থেকে ফেরাতে উদ্বুদ্ধকরণ এস আই নাজমুল আলম এর” তাহিরপুরে বিদ্যুৎ স্পর্শে এক ইলেকট্রিসিয়ানের মৃত্যু বাকেরগঞ্জে আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বর্নাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে আগৈলঝাড়ায় আওয়ামী লীগ’এর ৭৫তম প্লাটিনাম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত তাহিরপুর টাঙ্গুয়া হাওরে পর্যটকদের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

সৈয়দ শামসুল আলম হাসু তর্কবাগীশ ছিলেন সৎ ও আদর্শবাদী রাজনীতির উজ্জ্বল নক্ষত্র -মুহাম্মদ আতা উল্লাহ খান

Reporter Name / ৭ Time View
Update : শনিবার, ৪ নভেম্বর, ২০২৩

<strong>স্টাফ রিপোর্টার-

সৈয়দ শামসুল আলম হাসু তর্কবাগীশ ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতিতে বিশ্বাসী এসময়ের সৎ ও আদর্শ রাজনৈতিক এর উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।

বল বীর চির উন্নত মম শির এ বাণীতে বিশ্বাসী তিনি কখনো কারো কাছে কিংবা কোন অন্যায়ের কাছে মাথা নত করেন নি।
মানুষের চেয়ে বড় কিছু নাই, নহে কিছু মহিয়াল এই ব্রতে তিনি আমৃত্যু দেশ, মা, মাটি ও মানুষের সেবা করে গেছেন নির্মোহ এই মহান রাজনীতিবিদ।
আজ বিকেলে ৪ ঘটিকায় তোপখানা রোডস্থ, বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে তর্কবাগীশ গবেষণা পরিষদ আয়োজিত শোক সভায় বাংলাদেশ গণ আজাদী লীগের মহাসচিব মুহাম্মদ আতা উল্লাহ খান এ কথা বলেন, সংগঠনের সভাপতি সাবেক সচিব ডক্টর মোহাম্মদ জকরিয়া এর সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ডক্টর আমিন আহমেদ চৌধুরীর উপস্থাপনায় মূল প্রসঙ্গ উপস্থাপন করেন বরেণ্য নজরুল গবেষক শিক্ষাবিদ ও রাষ্ট্রচিন্তক তর্কবাগীশ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ডক্টর প্রফেসর শহীদ মনজু।
মরহুম পিতার জীবনের স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন মরহুমের পুত্র সৈয়দ রাশীদ আদীব তর্কবাগীশ।
শোক সভায় গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন সাবক মন্ত্রী, জাতীয় ঐক্য জোট এর চেয়ারম্যান, বিএলডিপির চেয়ারম্যান এম নাজিম উদ্দিন আল আজাদ, ১৪ দলের কেন্দ্রীয় নেতা জেপির প্রেসিডিয়াম সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা সাদেক সিদ্দিকী ন্যাপ এর কেন্দ্রীয় নেতা মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন, বি এন জোট এর মহাসচিব মেজর ডাক্তার শেখ হাবিবুর রহমান, জাতীয় জোটের সমন্বয়ক ও বাংলাদেশ কংগ্রেসের মহাসচিব অ্যাডভোকেট মোঃ ইয়ারুল ইসলাম, জাতীয় জনতার জোটের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টির চেয়ারম্যান মোঃ দেলোয়ার হোসেন, গর্জো এর সভাপ্রধান সৈয়দ মইনুজ্জামান, লিটু, প্রগতিশীল ইসলামিক জোটের কোঃ চেয়ারম্যান ও জাতীয় জনমত পার্টির চেয়ারম্যান সুলতান জিসান উদ্দিন প্রধান, গণতান্ত্রিক জোটের মহাসচিব ডক্টর আলহাজ্ব শরিফ সাকি, বঙ্গদ্বীপ মোস্তাক ভাসানী, মুফতি আবদুল মজিদ পঞ্চগড়ী, অ্যাডভোকেট আবুবক্কর সিদ্দিক, স্বাধীন জোট চেয়ারম্যান মির্জা আজম, ইসলামী ঐক্য জোটের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মাওলানা শওকত আমিন,জননেতা দীপু মীর,, ন্যাপ এর চেয়ারম্যান স্বপন সাহা, কবি লায়ন আফরোজা হাবিব হ্যাপী
আরো বক্তব্য রাখেন
বাংলাদেশ গণ আজাদী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জাতীয় নেতা মাওলানা আব্দুর রশিদ তর্কবাণীশের দৌহিত্র এস এম রাশেদুল আলম শুভ্র, প্রেসিডিয়াম সদস্য আলহাজ্ব মোহাম্মদ আকবর হোসেন, প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রফেসর এম আমিনুর রহমান, প্রেসিডিয়াম সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা কবি আবুল ফজল নূর, চৌধুরী প্রেসিডিয়াম সদস্য মাওলানা আবুল আনসার মোহাম্মদ আম্বর আলী ওলিপুরী, প্রেসিডিয়াম সদস্য এ্যাডভোকেট লতিফুর রহমান, প্রেসিডিয়াম সদস্য লায়ন খন্দকার রেজাউল করিম, দপ্তর সম্পাদক তাজুল ইসলাম লিটন, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল হক, সাংস্কৃতিক সম্পাদক মোঃ শাহাবুদ্দিন প্রমুখ,

মূল প্রসঙ্গ উপস্থাপক প্রফেসর ডক্টর শহীদ মনজু বলেন
অদ্ভুত এক অসাধারণ বর্ণিল রংগিন মানুষ আস্তে আস্তে শাদা কালো ছবি হয়ে গেলেন!
সৈয়দ শামসুল আলম , আমাদের প্রিয় হাসু ভাই!! ২৭ অক্টোবর ২০২৩ চলে গেলেন অনন্ত যাত্রায়!! চোখের জলে ভিজে যাওয়া একটি দিন!!
বাংলাদেশের প্রখ্যাত এক রাজনৈতিক পরিবারে জন্ম নেয়া অসাধারণ একজন মানবিক মানুষ। বাবা মাওলানা আব্দুর রশিদ তর্কবাগীশ সলঙ্গা বিদ্রোহের নায়ক , আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সভাপতি (১৯৫৬-১৯৬৬ এক মহা ক্রান্তিলগ্নে ), মুক্তি যুদ্ধের সংগঠকদের মধ্যে অন্যতম।
মা নুরুন্নাহার তর্কবাগীশ সুফি পীর জমিদার বংশের কন্যা।
এমন পরিবারের আলোকিত সুফি সন্ত নির্লোভ নিরহংকার মানবিক দেশপ্রেমিক মানবহিতৈষী ভালমানুষ প্রিয় শামসুল আলম হাসু ভাই। শ্রেষ্ঠ মুক্তিযোদ্ধা – মুজিব বাহিনীর আলোকিত সেনা। বাজুসের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি। জগন্নাথ কলেজের তুখোড় ছাত্রনেতা।
সভাপতি এর বক্তব্যে ডঃ মোহাম্মদ জকরিয়া বলেন বর্তমান সময়ে হাসু ভাইয়ের মত সৎ, ত্যাগী ও দেশপ্রেমিক রাজনীতিবি দের এর অভাব পূরন হবার নয়।
তিনি আরো বলেন তিনি একজন সাংবাদিক,সাহিত্যিক, শিল্প উদ্যোক্তা,তুখোড় ছাত্রনেতা ও একজন জাতীয় সৎ রাজনৈতিক ছিলেন।
আর সবচেয়ে বড় পরিচয় – এক অপূর্ব নেশা , মানব সেবার নেশা। কেউ তার কাছে সাহায্যের জন্য এসেছেন – আর খালি হাতে ফিরে গেছেন এমন ঘটনা কখনো ঘটেনি।তাঁর ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান ছিল আলোকিত মানুষের আড্ডা খানা।
রাজনীতিবিদ শিল্পী শিক্ষাবিদ সাহিত্যিক সবাইকে নিরবে সাহায্য সহায়তা করা ছিলো তাঁর নেশা। সব থেকেও জীবন সায়াহ্নে তাঁর কিছুই ছিলোনা!!
আমাদের প্রিয় হাসু ভাই , লড়াকু হাসু ভাই , ভালবাসার হাসু ভাই অবশেষে পরাজিত হলেন জীবনের অমোঘ সত্যের কাছে। মৃত্যু সেই অলংঘনীয় অনিবার্য সত্যের নাম – পাড়ি জমিয়েছেন অনন্তের পথে।
শেষ সময়ে তিনি তার প্রিয় বাংলাদেশের কাছে ফিরতে চাইতেন – ঘরে ভালবাসার কাছে ফিরতে চাইতেন!!
মুক্তিযুদ্ধের চেতনার, সুশাসনের, উদার গণতান্ত্রিক সোনার বাংলায়।
শোকসভার শেষে মরহুম সৈয়দ শামসুল আলম হাসু তর্কবাগীশের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মোনাজাত করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Theme Created By Limon Kabir