স্বামী সাইদ তালুকদার স্বপ্নের পদ্মা সেতু দেখতে চলে গেছেন শনিবার। এরপর তার স্ত্রী লতা খাতুন তার আগের প্রেমিক সুমন হোসেনের সঙ্গে মিলিত হলে স্থানীয় লোকজন ধরে ফেলে। এদিকে একই সময় সাইদ তালুকদারের মা ও লাভলী খাতুনের শাশুড়ি শারমিনা খাতুন তার পরকীয়া প্রেমিক সবুজ হোসেনের সঙ্গে ধরা খায়।ঘটনাটি ঘটেছে (২৯ জুন) বুধবার দিবাগত রাত পৌণে দুইটার দিকে দেশিগ্রাম ইউনিয়নের দেশিগ্রামের নিজ বাড়ির পাশাপাশি ঘর থেকে জনতা তাদের ধরে ফেলে।

চাঞ্চল্যকর এ বিষয়টি নিশ্চিত করে দেশিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গ্যানেন্দ্র নাথ বসাক বলেন, ধরা খাওয়া বউ-শাশুড়িকে তাদের বাড়িতেই লোকজন আটকে রেখেছেন। গ্রামবাসীর সঙ্গে আলোচনা করে তাদের সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
লতা খাতুন ও সুমন হোসেন বলেন, ১১ বছর ধরে আমরা দুজন দুজনকে ভালবাসি। এ ঘটনার পর বিয়ে করে নেওয়া ছাড়া উপায়ন্ত নাই। তাদের দুজনের ঘরেই একটি করে কন্যা শিশু রয়েছে।
শারমিনা খাতুন ও সবুজ হোসেন বলেন, আমরা ষড়যন্ত্রের শিকার। কিন্তু সামাজিক প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে বিয়ে করতে হবে।

 

এ প্রসঙ্গে তাড়াশ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, সোমবার সকাল সারে ৯টার দিকে তাদের থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.