সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকদের নামের পূর্বে ডাক্তার লিখা ও উচ্চ শিক্ষার সুযোগসহ বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক বোর্ড কর্তৃক প্রণীত ও প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে মন্ত্রী পরিষদ কর্তৃক পাশকৃত হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা শিক্ষা আইন ২০২১ মহান জাতীয় সংসদে পাশ করার দাবীতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায় ডিএইচএমএস ডক্টরস এসোসিয়েশন সুনামগঞ্জ জেলা শাখার আয়োজনে শহরের ট্রাফিক পয়েন্টে এ মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। ডিএইচএমএস ডক্টরস এসোসিয়েশন সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি ডাঃ দেবব্রত বণিকের সভাপতিত্বে ও দিরাই ডিএইচএমএস ডক্টরস এসোসিয়েশনের সভাপতি ডাঃ ইদ্রিছ আলীর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে এ সময় বক্তব্য রাখেন,এড. ডাঃ ক্ষিতিশ রঞ্জন রায় বানু,সংগঠনের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল হক মুন্সী, দিরাই ডিএইচএমএস ডক্টরস এসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক ডাঃ রনধীন চন্দ,ডাঃ তারেক আহমদ,ডাঃ রেজাউল করিম,ডাঃ ছিদ্দিকুর রহমান,ডাঃ জয়মণি দাস,ডাঃ শহীদ মিয়া,ডাঃ বকুল সরকার প্রমুখ।

বক্তারা বলেন,প্রায় দুইশত বছরের অধিককাল হোমিওপ্যাথিক ডাক্তারগণ,হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা বিঞ্জান বিশ্বে জনপ্রিয়তা ও গ্রহন যোগ্যতার সাথে স্বপ্লমূল্যে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছে। স্বাধীনতা পরবর্তী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের কার্যকারিতা ও গ্রহনযোগ্যতা উপলদ্ধি করে ১৯৭২ সালে বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথি বোর্ড গঠন করেন। বর্তমানে তারই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হোমিওপ্যাথিক উন্নয়নে দেশের বিভিন্ন জেলা সরকারী হাসপাতালে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক নিয়োগ দিয়েছেন। তারা বলেন,হোমিওপ্যাথিক প্র্যাকটিশনার্স অর্ডিন্যান্স ৮৩ পাশ হওয়ার পর থেকে ডিএইচএমএস ও বিএইচএমএস কোর্স সম্পন্ন করে বৈধ কৃর্তপক্ষের নিকট হতে চিকিৎসক রেজিস্ট্রেশন সনদ গ্রহন করে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ডাক্তারগণ স্বপ্লমূল্যে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছেন। এদিকে পরিবার কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের সহযোগিতায় হোমিওপ্যাথিক বোর্ডের চেয়ারম্যান ডাঃ দিলীপ কুমার রায়ের স্বদিচ্ছায় বেসরকারী হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে কর্মরত শিক্ষক,চিকিৎসক ও কর্মকর্তা কর্মচারীদের ২০১০ বেতন ভাতা চালু করা হয়। কিন্তু সম্প্রতি একটি কুচক্রী মহল হোমিপ্যাথিকের সফলতায় ঈর্শান্বিত হয়ে হোমিওপ্যাথিক ডাক্তারগণ নামের পূর্বে ডাক্তার লিখতে পারবেন না বলে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। তারা এমন অপপ্রচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা শিক্ষা আইন ২০২১ মহান জাতীয় সংসদে পাশ করার দাবী জানান। মানববন্ধন শেষে ডাক্তারগণ সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন। ##

আমির হোসেন
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
১৪.০৬.২০২২

Leave a Reply

Your email address will not be published.