সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার বোয়ালিয়া গ্রামে  বিদ্যালয়ে আসার পথে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় স্কুলের ভিতরে ঢুকে প্রকাশ্যে দপ্তরীকে পেটে ছুরি দিয়ে আঘাত করে আহত করেছে, আহত সুলতানা মাহামুদ কে  সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহতের বাবা মোঃ আবু বক্কার সরকার বাদী হয়ে থানায় একটি আভিযোগ দায়ের করেছে।

 

ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর)  সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার জাহাঙ্গীরগাতী, চক-সরাপপুর, বোয়ালিয়া দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের, মোঃ আবু বক্কার সরকারের ছেলে আহত সুলতান মাহামুদ ওই বিদ্যালয়ের দপ্তরী, বখাটে উপজেলার বোয়ালিয়া গ্রামের ছেলিম তালুকদারের ছেলে সাফি তালুকদার।

 

জাহাঙ্গীরগাতী, চক-সরাপপুর, বোয়ালিয়া দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুল হামিদ জানান, প্রায়ই ওই ছাত্রীকে রাস্তায় উত্ত্যক্ত করত বখাটে সাফি তালুকদার। আবারও আজ ওই ছাত্রী স্কুলে আসার পথে বখাটে সাফি তালুকদার উত্ত্যক্ত করে তখন বোয়ালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরী প্রতিবাদ করায়।  স্কুলের ভিতরে ঢুকে প্রকাশ্যে ছুরি দিয়ে পেটে আঘাত করে আহত করেছে,আমরা সবাই মিলে তাকে ধোরে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছি।

 

এদিকে স্কুলের সভাপতি জহুরুল ইসলাম মাস্টার বলেন, `প্রায়ই বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার পথে ওই বখাটে ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে। আজ এর প্রতিবাদ করায় পাশের বোয়ালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরীকে ছুরি দিয়ে আঘাত করেছে। আমি এর আইনি শাস্তি দাবী করছি।’

 

এ প্রসঙ্গে তাড়াশ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম জানান, দ্রুত বখাটের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Don`t copy text!
%d bloggers like this: