সিরাজগঞ্জ মেডিকেল এ্যাসিসটেন্ট ট্রেনিং স্কুলের (ম্যাটস্) হোষ্টেল সুপারের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। রোববার দুপুরের দিকে ওই স্কুল চত্তরে এ বিক্ষোভ সমাবেশ পালন করা হয়। এ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, ওই স্কুলের ৩য় বর্ষের ছাত্র মেজবাউল কাউসার, সাগর দাস, মতিয়ার, সৈকত, ইমরান, সুমাইয়া খাতুন, হানিফা খাতুন, জ্যোতি প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, সিরাজগঞ্জ মেডিকেল এ্যাসিসটেন্ট ট্রেনিং স্কুলের (ম্যাটস্) হোষ্টেল সুপার ডা. রফিকুল আলম শিক্ষার্থীদের ভাইভা পরীক্ষার হুমকি, দুঃচরিত্রকারী, সোচ্চাকারী মেডিকেল অফিসার ও হোষ্টেল সুপারকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে অপসারণ করতে হবে। অপসারণ করা না হলে কঠোর আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে। ওই হোষ্টেল সুপার রাষ্ট্রীয় চিকিৎসা অনুষদ বিভাগের মৌখিক পরীক্ষায় বেশি নম্বর পাইয়ে দেয়ার কথা বলে ছাত্রীদের প্রলুব্ধ করতেন। তার অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হলে ছাত্রীদের বিভিন্ন কায়দায় যৌন হয়রানি করতেন। এসব ঘটনার প্রতিকার না পেয়ে অনেকেই প্রতিষ্ঠান ছেড়েও চলে গেছে।

অভিযুক্ত হোষ্টেল সুপার ডা. রফিকুল আলম সাংবাদকিদের বলেন, একটি মহল শিক্ষার্থীদের দিয়ে আমার বিরুদ্ধে মাঠে নামিয়েছে। ষড়যন্ত্রমূলক এসব অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।

এ বিষয়ে মেডিকেল এ্যাসিসটেন্ট ট্রেনিং স্কুল (ম্যাটস্)’র অধ্যক্ষ আকিকুন নাহার বলেন, ওই হোষ্টেল সুপারের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেছে। এ বিষয়ে উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষকে অবগত করেছি। তদন্তপ‚র্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Don`t copy text!
%d bloggers like this: