সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর থানার গোপরেখী গ্রামের কলেজ শিক্ষক আব্দুল গফুরের (৫৪) বাড়িতে বোমা সদৃশ বস্তু নিয়ে এলাকায় আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। ওই বাড়ির লোকজনকে নিরাপদে নেয়া হয়েছে এবং বাড়ির প্রধান ফটকসহ গোটা বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ। এনায়েতপুর থানার ওসি আনিসুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রোববার রাতে ওই কলেজ শিক্ষকের মোবাইল নম্বরে একটি কল আসে। এ কলের অপরপ্রান্ত থেকে বলা হয় ‘তোর বাড়ির খাবার ঘরের আলমিরার নিচে বোমা রাখা আছে। দেখা না করলে তোকে উড়িয়ে দেয়া হবে এবং পরে কথা হবে বলে ফোন কেটে দেয়া হয়। মোবাইলে কথা বলার পরই ওই কলেজ শিক্ষকের স্ত্রী আলমিরার নিচে কাটুন দেখতে পায়। এ কার্টুন সড়ালে নিচে স্কটটেপে মোড়ানো সাথে তারযুক্ত একটি বোমা সদৃশ বস্তু দেখা যায়। এতে ওই পরিবারের লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।

সোমবার সকালে থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করা হয়। তাৎক্ষনিকভাবে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সিদ্দিক আহম্মেদসহ পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ বিষয়টি উর্ধতন পুলিশ কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। এটি বোমা কি না সেটি নিশ্চিত করতে ঢাকা থেকে বোমা নিষ্ক্রিয়করণ দল ঘটনাস্থলে রওনা হচ্ছেন। রাতেই এ দলটি ঘটনাস্থলে পৌছবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

এদিকে এ খবর ছড়িয়ে পড়ায় এলাকায় ব্যাপক আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। অবশ্য ওই পুলিশ কর্মকর্তা বলছেন, এতে আতঙ্ক হবার কিছু নেই বলে তিনি উল্লেখ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.