স্বজনদের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করতে ঢাকা থেকে ঘরে ফেরা উত্তরের মানুষগুলোর যাত্রাপথে দুর্ভোগের যেন অন্ত নেই। ঘণ্টার পর ঘণ্টা তপ্ত রৌদ্র আর ভ্যাপসা গরম সহ্য করে তাদের রাস্তাতেই কাটাতে হচ্ছে।

যানজটে কখনো কখনো স্থবির হয়ে পড়ছে মহাসড়ক। ঠিক তখনই তৃষ্ণার্ত মানুষদের পিপাসা মেটাতে পানির বোতল দিয়ে যাচ্ছে স্বেচ্ছাসেবীরা।  

শনিবার (৯ জুলাই) সকাল থেকেই সিরাজগঞ্জের হাটিকুমরুল গোল চত্বর থেকে চান্দাইকোনা মহাসড়কের ভূইয়াগাঁতী ও চান্দাইকোন এলাকায় এসব পানি বিতরণ করে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “স্বপ্ন নিয়ে পথচলা” নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা।  

স্থানীয়রা জানায়, ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গগামী যাত্রীরা যানজটে নাকাল হয়ে পড়েছে। তিন ঘণ্টার রাস্তা আসতে সময় লেগেছে ১৪ থেকে ১৫ ঘণ্টা। প্রচণ্ড গরম আর রোদে মানুষ চরম ভোগান্তি নিয়ে ভ্রমণ করছেন। অনেকেই আবার অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। মানুষের এ দুর্ভোগের সুযোগ নিচ্ছে কিছু মৌসুমি ব্যবসায়ী। তারা মহাসড়কের পাশে দাঁড়িয়ে ১০ টাকার পানি ২০ টাকায় বিক্রি করছেন।  

এ অবস্থায় স্বপ্ন নিয়ে পথচলা নামে এ সংগঠনটি বোতলজাত পানি ক্লান্ত মানুষের হাতে হাতে তুলে দিচ্ছে।  

সংগঠনটির আহ্বায়ক মো. বাহাদুর আলী জানান, তৃষ্ণার্ত মানুষগুলোর পাশে দাঁড়াতে উল্লাপাড়ার একটি পরিবার নাম প্রকাশ না করার শর্তে আমাদের অর্থায়ন করেছে। আমাদের সংগঠনের ১৪ জন সদস্য দুদিন ধরে রাস্তায় দাঁড়িয়ে পানির জন্য ক্লান্ত ও অসুস্থ হয়ে পড়া যাত্রীদের হাতে পানির বোতল তুলে দিচ্ছে।  

Leave a Reply

Your email address will not be published.