নিউজ ডেক্স বাকেরগঞ্জ:

বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতি ইউনিয়নে চামটা গ্রামের মুন্দি বাড়ী জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে পরিবারের সকলকে হত্যার উদ্দেশ্যে পরিকল্পিতভাবে সশস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে।

এতে গুরুতর আহত মোসাঃ হোসনেয়ারা বেগম(৪২) মোঃ জাবের হোসেন (১৯) লামিয়া আক্তার (১৬) ও মোঃ জাকির হাওলাদার (৫২) কে বাকেরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভর্তি করা হয়, তাদের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রায়ন করা হয়েছে
(০১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার দুপুরে ) বাকেরগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতি ইউনিয়নের চামটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযোগ সূত্রে সুত্র জানায়, বাকেরগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতি ইউনিয়নের চামটা গ্রামের জাকির হাওলাদারের পাশাপাশি বাড়ির হামেদ হাওলাদার এর পুত্র সোহাগ হাওলাদার (৪২) এর সাথে  জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। জাকির হাওলাদার জীবন ও জীবিকার তাগিদে দেশের বাহিরে থাকেন। কয়েক মাস আগে জাকির হাওলাদার বাড়িতে আসেন। শুক্রবার দুপুরে তার ক্রয় করা জমিতে বাশের বেরা দিতে থাকেন এসময় বিরোধী পক্ষ সোহাগ হাওলাদার ও তার দল বল খোকন, মনির, লতিফ আর অনেককে নিয়া তার জমির নিকটে পৌঁছলে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা সোহাগ হাওলাদার, তার দলবল আর অজ্ঞাতনামা ১০-১২ জন হাতে রামদা চাপাতি লোহার রড লাঠি সোটা সহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার পথরোধ করে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। হামলাকারীরা তাকে তার ফ্যামিলির সকলকে হত্যার চেষ্টায় তাদের সকলের মাঁথা ও পায়ে এলোপাথারি পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে এতে প্রত্যেকেরই মাথায়৪-৫ টি সেলাই দিতে হয়েছে । তারদের ডাকচিৎকার স্থানীয় গ্রামবাসী এগিয়ে আসে সন্ত্রাসী সোহাগ বাহিনীর হসত থেকে উদ্ধার করে প্রথমে তাদের বাকেরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পাঠায় অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য সেবাচিমে প্রেরণ করে।

সশস্ত্র হামলার বিষয়ে আইনের বিচারের দাবি জানিয়েছেন পরিবার শহ স্থানীয়রা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Don`t copy text!
%d bloggers like this: