স্টাফ রিপোর্টারঃ

বগুড়ায় মাদক সেবন কে কেন্দ্র করে লিটন শেখ (৩২) নামের এক পিকআপ ভ্যান চালককে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (১৬ জুলাই) দিবাগত রাত ৩ টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (ঢামেক) এ তিনি মারা যান। লিটন সদর উপজেলার ছোট কুমিড়া পশ্চিমপাড়া এলাকার মৃত আশরাফ আলীর ছেলে।

পুলিশ জানায়, শনিবার সকাল ১১টার দিকে ঘটনাটি ওই এলাকাতেই ঘটে। ঐদিন দিবাগত রাত ১২ টার দিকে লিটনের বড় বোন ডলি বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। এরপরেই মামলায় অভিযুক্ত রিতা বেগম (৩০) ছোট কুমিড়া পশ্চিমপাড়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি ওই এলাকার মো. রহিমের স্ত্রী।

পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, নিহত লিটন পেশায় মুরগি পরিবহনের পিকআপ ভ্যান চালক। স্থানীয়ভাবে এইপেশায় আরও কয়েকজন যুবক কাজ করেন। তাদের সাথে মাদক সেবন নিয়ে লিটনের বাকবিতণ্ডাতা হয়। একপর্যায়ে ৬ থেকে ৭ জনের একটি দল দেশীও অস্ত্র দিয়ে লিটনের মাথায় আঘাত করে। পড়ে স্থানীয়রা লিটনকে প্রথমে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে দেন। সেখানে অবস্থার অবনতি ঘটলে তার উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (ঢামেকে) নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় লিটনের মৃত্যু হয়।

বগুড়ার উপশহর পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাফিজুর রহমান বলেন, প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানাগেছে ইয়াবা সেবন করা নিয়ে বিরোধের জের ধরে মারামারি ঘটনা ঘটে। লিটন শেখ মারা যাওয়ার পর এলাকায় উত্তেজনা দেখা দিলে ঘটনাস্থল থেকে রিতা নামের এক নারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।।

Leave a Reply

Your email address will not be published.