পাবনার আ.লীগ নেতা আক্কাস হত্যা মামলায় গোয়ালন্দে এক আসামীর স্বীকারোক্তি প্রদান

শেখ রনজু আহাম্মেদ রাজবাড়ী প্রতিনিধিঃ

 

পাবনার আওয়ামীলীগ নেতা আক্কাস আলী হত্যা মামলায় রাজবাড়ী ডিবি পুলিশের সদস্যরা অভিযান চালিয়ে মোঃ রাশেদুল ইসলাম (২০) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে। সে গোয়ালন্দ উপজেলার চরপাড়া গ্রামের অফু মন্ডলের ছেলে। শুক্রবার রাজবাড়ী আদালতে সে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান করেছে।

জানাগেছে, গত ২১ জুন দুপুর সাড়ে ১২ সময় পাবনা জেলার আমিনপুর থানার ধারাই গ্রামের ময়েজ উদ্দিনের ছেলে ও ঢালারচর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আক্কাস আলী (৬২) কে রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ ঘাট থানার দেবগ্রাম ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের রাখালগাছি গ্রামের করিম প্রামানিকের বাড়ীর সামনে রাস্তার কাজ পরিদর্শন করাকালিন সময়ে প্রকাশ্য দিবালোকে অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে নির্মম ভাবে হত্যা করে চলে যায়। এ ঘটনায় গোয়ালন্দ ঘাট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে নিহতের ছেলে মোঃ চাঁন মিয়া বেপারী মামলা দায়ের করেন। মামলায় ১৬ জনের নাম উল্লেখ করাসহ অজ্ঞাতনামা আরও ১০-১২ জনকে আসামী করা হয়। মামলা দায়েরের পর রাজবাড়ী পুলিশ সুপার এম এম শাকিলুজ্জামানের নির্দেশনায় রাজবাড়ী ডিবি পুলিশ ছায়া তদন্ত শুরু করে। এ হত্যার সাথে জড়িত আসামী মোঃ রাশেদুল ইসলামকে গত ৩০ জুন গোয়ালন্দ ঘাট থানার চরপাড়া নামক স্থান থেকে গ্রেফতার করে। তাকে রাজবাড়ী ডিবি অফিসে এনে হত্যার ঘটনা সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করে। জিজ্ঞাসাবাদে রাশেদুল ইসলাম হত্যার ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে এবং ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্য অজ্ঞাত আসামীদের নাম প্রকাশ করে। তাকে শুক্রবার রাজবাড়ী আদালতে সোপর্দ করা হলে সে হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় দোষ স্বীকার করে জবানবন্দী প্রদান করে।

রাজবাড়ী জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) অফিসার ইনচার্জ প্রাণ বন্ধু চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, গ্রেফতারকৃত রাশেদুল ইসলাম হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। তাকে গ্রেফতারের ফলে এলাকায় জনসাধরণের মধ্যে স্বস্থি ফিরে এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.