পরিশ্রমই এনে দেয় সফলতা পরিশ্রমের কোনো বিকল্প নেই, তৌহিদ হোসেন

 

শরিফা বেগম শিউলী স্টাফ রিপোর্টারঃ

স্মৃতিচারণ, আলোচনা সভা ও গুনীজন সম্মাননা পেলেন তরুন উদ্দোক্তায় সেরা কর দাতা পর পর ৪ বারের মোঃ তৌহিদ হোসেন আশরাফী সোমবার (২০ জুন) রংপুর টাউনহল মঞ্চে বিশেষ অতিথি হিসেবে সাংবাদিকদের কাছে তিনি বলছিলেন নিজের জীবনের সফলতার গল্প। মোঃ তৌহিদ হোসেন আশরাফী তার ফেলে আসা কষ্টের দিনগুলোর কথা বলতে গিয়ে বলেন, এমনও দিন গেছে ২৪ ঘন্টার মধ্যে ১৮ ঘন্টাই কাজ করতে হয়েছে। বাকি সময়টা ঘুমসহ অন্য কাজ করেছি। অসংখ্য নেশাগ্রস্ত লোকের সাথে হেঁটেছি, কিন্তু জীবনে কোনো দিন একটি সিগারেটও মুখে নিইন।চিন্তা করেছি যদি পরিশ্রম করে যাই আর লক্ষ ঠিক রাখি তাহলে সফলতা একদিন আসবেই। কঠোর পরিশ্রম করার কারণে সফলতা আসতে বেশীদিন লাগেনি।

 

তিনি বলেন, ছিলাম ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, মটর সাইকেল পাটস দিয়ে শুরু হয়েছিল পথচলা। গড়ে উঠেছে সুমি অটো সেন্টার, রয়্যালটি মেগামলের কয়েকটি শাখা, তাওহীদ ব্যাটারি ইন্ট্রাটিস, আশরাফী ছাত্র নিবাস, সুমি এন্টারপ্রাইজ সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।ভাবতে অবাক লাগে এসব প্রতিষ্ঠানে কাজ করছে প্রায় ৩৫০জনের মত মানুষ। আমার সম্পদ বাড়ার সাথে সাথে তাদের সংসারও চলছে আমার প্রতিষ্ঠানে কাজ করে।

 

তিনি বলেন, সফল হতে হলে প্রথমে দরকার সততা। তারপর সঠিক লক্ষ এবং তা বাস্তবায়ন করার স্পৃহা ও কঠোর পরিশ্রম। যদি কেউ সুশিক্ষিত হয় এবং লক্ষ ঠিক করতে পারে তাহলে অবশ্যই সে সফল হবে। অন্যরা বিশ্বাসঘাতকতা করলেও নিজের কাজ আর পরিশ্রম নিজের সাথে কখোনোই বিশ্বাসঘাতকতা করেনা। পরিশ্রম অবশ্যই সফলতা এনে দেবে।

 

বিকাল ৫ থেকে রাত ৮ টা পরযন্ত অনুষ্ঠানে ফরহাদুজ্জামান ফারুকের সঞ্চলনায় ও মাহাবুবার রহমান হাবুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোঃ আব্দুল ওহাব মিঞা, বিভাগীয় কমিশনার, রংপুর বিভাগ, সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোঃ মাহমুদুর রহমান টিটু, প্যানেল মেয়র রংপুর সিটি কর্পোরেশন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উজ্জ্বল কুমার রায় উপ- পুলিশ কমিশনার, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ রংপুর, মোঃ ফিরোজুল ইসলাম,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রংপুর, মোঃ সৈয়দ মোহাম্মদ ফরহাদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, রংপুর, মোঃ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, সভাপতি রংপুর জেলা আওয়ামী লীগ, রংপুর, বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন সহ বিভিন্ন সাংবাদিক ইউনিয়ন এর নেতৃবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই মাত্র পাওয়া খবর

চাকমারকুল মিয়াজীপাড়ায় মিনিবার ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা সম্পন্ন। মোহাম্মদ নোমান রামু কক্সবাজার প্রতিনিধি। শুক্রবার (২৭ জানুয়ারী ,২০২৩ইং) রাত ৮.০০ টায় রামু উপজেলার চাকমারকুল ইউনিয়নের মিয়াজীপাড়ায় ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান ব্যাপক দর্শক সমাগমের মধ্য দিয়ে বহুল প্রশংসিত এবং প্রত্যাশিত সী-গ্রীন স্পোর্টিং ক্লাব কর্তৃক আয়োজিত মিনি বার ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০২২-২৩ এর ফাইনালখেলা সম্পন্ন হয়েছে। উক্ত ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন কলঘর বাজার সিনিয়র ফুটবল দল বনাম মালুম ঘাট ফুটবল দল। মাঠে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচে মালুম ঘাট ফুটবল দলকে ১-০ গোলে পরাজিত করে কলঘর বাজার সিনিয়র ফুটবল দল চ্যাম্পিয়ন হয়।উক্ত খেলায় সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন কলঘর বাজার সিনিয়র ফুটবল দলের খেলোয়াড় আয়াত উল্লাহ। খেলা শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের মাঝে ট্রফি সহ নগদ ৫০,০০০ টাকা,পরাজিতদের হাতে ট্রফিসহ নগদ ২০০০০ টাকা পুরস্কার তুলে দেন চাকমারকুল ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জনাব মুফিদুল আলম (মুফিদ)। সী-গ্রীন স্পোর্টিং ক্লাবের উপদেষ্টা জনাব সরওয়ার আলমের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাকমারকুল ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার জনাব সাহাব উদ্দিন, ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার জনাব বেলাল উদ্দীন শাহীন, ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার জনাব নুরুল ইসলাম নুরু ১,২,৩ ওয়ার্ডের মহিলা মেম্বার জনান্বা আল মর্জিনা, ৪,৫,৬নং ওয়ার্ডের মহিলা মেম্বার গুলজার বেগম ৭,৮,৯১নং ওয়ার্ডের মহিলা মেম্বার মরিয়ম বেগম,সমাজ সেবক আমির হোসেন সিকদার, যুব নেতা সালাহ উদ্দীন জনাব সাইফুল ইসলামসহ প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুফিদুল আলম বলেন, যুব সমাজকে খেলাধূলার প্রতি আগ্রহী করে তাদেরকে রক্ষা করতে হবে। যুবসমাজকে রক্ষা করতে পারে একমাত্র ক্রীড়া জগত। তাই বেশি বেশি করে খেলাধূলার আয়োজন করতে হবে। উক্ত টুর্ণামেন্টের পরিচালনায় ছিলেন জানে আলম,ন্হুমায়ুন বিন কাসেম হিরু,জামাল হোসেন,কায়সার,জামশেদ,আশেক,হামিদুর রহমান,মনছুর,সোহেল,মনজুর,জাহেদুল ইসলাম,নুরুসহ প্রমুখ

Don`t copy text!
%d bloggers like this: