চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে ট্রেনের ধাক্কায় পর্যটকবাহী মাইক্রোবাসের ১১ যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও পাঁচ জন। হতাহতরা মাইক্রোবাসের যাত্রী। তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের পরিচয় জানা যায়নি।

শুক্রবার (২৯ জুলাই) দুপুর পৌনে ২টার দিকে মীরসরাইয়ের বারতাকিয়া রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মীরসরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কবির হোসেন।

ওসি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘খৈয়াছড়া ঝরনায় ভ্রমণ শেষে ফেরার পথে পর্যটকবাহী মাইক্রোবাসটি বারতাকিয়া রেললাইনের ওপর উঠে গেলে ট্রেনের ধাক্কায় ১১ জন নিহত হন। মাইক্রোবাসটিকে অনেক দূরে টেনে নিয়ে গেছে ট্রেনটি। মাইক্রোবাসে ১৬ জন পর্যটক ছিলেন। এরমধ্যে ১১ জন নিহত হয়েছেন। পাঁচ জন আহত হয়েছেন। তাদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’
চট্টগ্রাম রেলওয়ে পুলিশ সুপার মো. হাসান চৌধুরী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামমুখী মহানগর প্রভাতী ট্রেনের ধাক্কায় মাইক্রোবাসের ১১ যাত্রী নিহত হয়েছেন। আরও পাঁচ জন যাত্রী আহত হয়েছেন। উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেছে ফায়ার সার্ভিস। ধাক্কা দিয়ে প্রায় আধা কিলোমিটার মাইক্রোবাসটি নিয়ে গেছে ট্রেনটি।’

ফায়ার সার্ভিসের চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. আনিসুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে ১১ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস। পাঁচ জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মাইক্রোবাসটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। খৈয়াছড়া এলাকা থেকে মাইক্রোবাসটিকে বারতাকিয়া রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত টেনে নিয়ে গেছে ট্রেনটি। সেখানে উদ্ধার কার্যক্রম চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Don`t copy text!
%d bloggers like this: