শেফাইল উদ্দিন

কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলায় ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে চিংড়ি ঘের জবর দখলের পাঁয়তারা করার অভিযোগ উঠেছে। এতে এলাকার লোকজনের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে । এলাকাবাসী অস্ত্র উদ্ধারের দাবি জানিয়েছেন ।
বুধবার ( ১৫ জুন) গভীর রাতে উপজেলার পোকখালী ইউনিয়নের পুর্ব গোমাতলী এলাকার চৌধুরী ঘোনা প্রকাশ হাফেজ মিয়ার ঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে ।
জানা যায়, পোকখালী গোমাতলী এলাকার একটি প্রভাবশালী চক্র দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে ঘের জবর দখল, অপরের জমি দখল, খুন ,মারামারিসহ বিভিন্ন অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে । এই বাহিনীর রাম রাজত্বে এলাকার সাধারণ লোকজন জিম্মি হয়ে আছে। এদের বিরুদ্ধে খুন মারামারি,জবর দখলসহ বিভিন্ন মামলা থাকলে ও থেমে নেই এদের অপকর্ম। এরা বিশাল বাহিনী গঠন করে এ অপরাধী কার্জক্রম নিয়ন্ত্রণ করছে বলে জানান এলাকার লোকজন।
সম্পতি এ চক্রের লুলোপ দৃষ্টি পড়ে চৌধুরী ঘোনার উপর । এরই ধারাবাহিকতায় ঘটনার দিন গভীর রাতে অস্ত্রের মহড়া দিয়ে এই সংঘবদ্ধ চক্র চৌধুরী ঘোনায় ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে । গভীর রাতে একেরপর এক গুলির শব্দে এলাকার লোকজনের মাঝে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। অনেকে চিংড়ি ঘেরের বাসা থেকে ভয়ে পালিয়ে যায় ।
অন্যদিকে রাতে গুলি বর্ষণের ঘটনায় এলাকার লোকজন চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন বলে জানান ।
বড় ধরনের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ থেকে রক্ষা পেতে এলাকাবাসী অস্ত্র উদ্ধারের দাবি জানিয়েছেন ।
পোকখালী ইউনিয়ন কৃষক লীগের সভাপতি স্থানীয় রহমত উল্লাহ জানান, এই বাহিনী গভীর রাতে বৃষ্টির মত গুলি বর্ষণ করতে থাকে এবং ১৫ রাউন্ড গুলি ছুড়ে। আমরা পরিবার পরিজন নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় আছি। অস্ত্রধারীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
জমির মালিক পক্ষ ওবাইদুল হক চৌধুরী গংয়ের ওয়ারিশ কলিম উল্লাহ জানান, আমাদের জমি নিয়ে কোন বিরোধ নেই যারা এ সব করতেছে তাদের বিরুদ্ধে খুন জবর দখল সহ বিভিন্ন মামলা ও অভযোগ রয়েছে । এটা এদের পেশা । এদের কোন দাবি থাকলে আমাদের সাথে কথা বলতে হবে ,বসততে হবে । রাতের অন্ধকারে গুলি ছুড়ে জায়গা পায় না , জায়গা পেতে কাগজ লাগবে ।
স্থানীয় আয়োব আলী ,জসিম,আবদুল্লাহ,সাদ্দামসহ অনেকে জানান, মোহাম্মদ ছৈয়দ, মাহমুদুল হক মেম্বার, মোজাহের , মোহাম্মদ হোসেন প্রকাশ রাইফেল মাছন এ ঘটনার মুল হোতা । এরাই সমস্ত অপকর্ম নিয়ন্ত্রণ করে ।
ঈদগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হালিমের সাথে কথা হলে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছিল এবং বিষয়টি ঘের নিয়ে বিরোধ উভয় পক্ষেকে ডাকা হয়েছে। এলাকাবাসী প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.