নয়ন দাস,কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামে প্রশ্নপত্র ফাঁসের মামলার প্রধান আসামি ভূরুঙ্গামারী নেহাল উদ্দিন পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের বরখাস্ত হওয়া প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্রসচিব লুৎফর রহমানের তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। এছাড়া অন্য আসামিদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টার দিকে কুড়িগ্রামের চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সুমন আলী এ আদেশ দেন। এর আগে গত ২২ সেপ্টেম্বর কেন্দ্র সচিব লুৎফর রহমানের রিমান্ডের আবেদন করে পুলিশ। পরে আদালত শুনানির জন্য আজকের দিন ধার্য করেছিলেন।

প্রশ্নপত্র ফাঁসের মামলায় এখন পর্যন্ত পাঁচ শিক্ষক এবং এক অফিস সহায়ককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তারা হলেন- প্রশ্নফাঁসের মূলহোতা প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্রসচিব লুৎফর রহমান, ইংরেজি বিষয়ের শিক্ষক আমিনুর রহমান রাসেল, ইসলাম শিক্ষা শিক্ষক জোবায়ের হোসেন, কৃষিশিক্ষা শিক্ষক হামিদুর রহমান, বাংলা বিষয়ের শিক্ষক সোহেল আল মামুন এবং অফিস সহায়ক সুজন মিয়া। এজাহার নামীয় আরেক আসামি অফিস সহকারী আবু হানিফ পলাতক আছেন। এদের সবাইকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছে বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটি।

ভূরুঙ্গামারী থানার পরিদর্শক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আজাহার আলী বলেন, গত ২২ সেপ্টেম্বর মামলার মূলহোতা প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্রসচিব লুৎফর রহমানের তিনদিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। এসময় আদালত রিমান্ড শুনানির জন্য আজকের দিন ধার্য করেছিলেন। নির্ধারিত দিনে শুনানি শেষে লুৎফর রহমানের তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বিচারক।

তিনি বলেন, আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এই ঘটনার সঙ্গে আরও কারা জড়িত তাদের তথ্য উদঘাটন করে আইনের আওতায় আনা হবে। এছাড়া নতুন করে শিক্ষক আমিনুর রহমান রাসেল এবং জোবায়ের হোসেনের তিনদিনের রিমান্ড আবেদন করলে বিচারক আগামী ২ অক্টোবর শুনানির দিন ধার্য করেন। মামলার এজাহারভুক্ত আসামি নেহাল উদ্দিন পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস সহায়ক আবু হানিফ পলাতক আছেন। তাকে ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট দিলরুবা আহমেদ শিখা বলেন, আসামিরা প্রশ্নফাঁসের ঘটনা ঘটিয়ে দেশ ও জাতির ক্ষতি সাধন করেছেন। এই ঘটনার নেপথ্যে যারা রয়েছেন তাদের খুঁজে বের করতে গ্রেফতারদের রিমান্ডের প্রয়োজন ছিল। আসামিপক্ষের আইনজীবী জামিন আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করে ঘটনার মূলহোতা লুৎফর রহমানের তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। এছাড়া শিক্ষক আমিনুর রহমান রাসেল ও জোবায়ের হোসেনের তিনদিনের রিমান্ড আবেদন শুনানির দিন আগামী রোববার ধার্য করেছেন বিচারক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Don`t copy text!
%d bloggers like this: