করোনার কথা’ ও ‘জন্ম থেকে জ্বলছি’

বইয়ের জমজমাট প্রকাশনা উৎসব

হাকিকুল ইসলাম খোকন, যুক্তরাষ্ট্র সিনিয়র প্রতিনিধিঃ

 

শিতাংশু গুহ রচিত “করোনার কথা” ও “জন্ম থেকে জ্বলছি“ প্রকাশনা উৎসব হয়ে গেল রোববার ৫ জুন ২০২২। বিপুল সংখ্যক মানুষের উপস্থিতিতে নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের ‘জুইস সেন্টারে’ অনুষ্ঠিত এ উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন একুশে পদক বিজয়ী লেখক ও মুক্তিযোদ্ধা ড: নুরুন নবী। সভাপতিত্ব করেন লেখক ও বুদ্ধিজীবী বেলাল বেগ এবং উপস্থাপনায় ছিলেন কবি ফকির ইলিয়াস। প্রাণবন্ত এ অনুষ্ঠানটি সবার প্রশংসা কুড়িয়েছে। উল্লেখ্য, ঢাকার বই মেলা ২০২১ ও ২০২২-এ যথারীতি “করোনার কথা” ও “জন্ম থেকে জ্বলছি“ প্রকাশিত হয়, আগামী প্রকাশনী বই দু’টি প্রকাশ করে। খবর বাপসনিউজ।

শুরুতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান.জাতীয় চার নেতা, ৭১-এর মুক্তিযুদ্ধ ও সীতাকুণ্ডে নিহতদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানানো হয় এবং ১মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এরপর বই দু’টির মোড়ক উন্মোচন করা হয়। লেখক শিতাংশু গুহ সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বই দু’টি প্রকাশের পটভূমি ব্যাখ্যা করেন। তিনি জানান, ‘করোনার কথা’ মূলত: করোনা-কালীন নিউইয়র্কে যে ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি বিরাজ করছিলো এতে তা বিধৃত আছে’ আছে বহু মৃত্যু ও বেঁচে থাকার কাহিনী। বাংলাদেশ ও অন্যান্য দেশের ঘটনা এবং অতীত মহামারীর ইতিহাস আছে। এতে বেশ ক’জন ডাক্তারের কথাবার্তা এবং তাদের অভিজ্ঞতা বর্ণিত হয়েছে। লেখকের মতে বইটি ট্রাজেডীময় এবং একটি প্রামাণ্য দলিল। জন্ম থেকে জ্বলছি’ নামটি দেয়ার ঘটনাটি লেখক প্রকাশ করে জানান, সম্ভবত: আশীর দশকের শুরুতে ঢাকার ফার্মগেট সংলগ্ন গ্রিনরোডে একদিন একটি ট্রাক যাচ্ছিলো। ট্রাকের বিশাল পেট্রল ট্যাঙ্কির ওপর লেখা ছিলো ‘জন্ম থেকে জ্বলছি’। এতদিন বাদেও লেখক তা ভুলেননি, তারমতে তিনি জন্ম থেকেই জ্বলছেন। বইয়ের শুরু বঙ্গবন্ধু‘র ওপর প্রবন্ধ দিয়ে। লেখক প্রশ্ন রেখেছেন, আজকের বাংলাদেশ কি বঙ্গবন্ধু’র বাংলাদেশ? এই বাংলাদেশ কি আমরা চেয়েছিলাম? প্রধান অতিথি ড: নুরণ নবী প্রচন্ড সর্দি, কাঁশি ও জ্বরের কারণে উপস্থিত হতে পারেননি, তবে টেলিফোনে তাঁর বক্তব্য পেশ করেন। তিনি লেখকের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

অনুষ্ঠানে ‘জন্ম থেকে জ্বলছি’ বইটি’র ওপর মূল আলোচনা করেন ড: সব্যসাচী ঘোষ দস্তিদার, এমিরেটস সার্ভিস প্রফেসর, সুনি ওল্ড ওয়েস্টবেরী ইউনিভার্সিটি, নিউইয়র্ক। ‘করোনার কথা’ বইয়ের মূল আলোচক ছিলেন লেখক ডাক্তার সুভাষ শিকদার। সাবেক উপাচার্য ড: দুর্গাদাস ভট্টাচার্য্য একটি লিখিত বক্তব্য পাঠিয়ে দেন, যেটি পরে শোনান ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি’র সাধারণ সম্পাদক স্বীকৃতি বড়ুয়া। লিখিত বক্তব্যে ড: দুর্গাদাস ভট্টাচার্য্য ‘করোনার কথা’ বইয়ের ভূয়সী প্রশংসা করেন (তাঁর বক্তব্যটি সংযুক্ত)।

ড: দস্তিদার বলেন, লেখক যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছেন, তা কেউ করতে চাননা, বা শুনতে চাননা, অথবা মানতে চাননা। অথচ ঘটনা ঘটছে। বুঝতে হবে লেখক কেন জন্ম থেকে জ্বলছেন। ডাক্তার সুভাষ শিকদার বলেন, করোনা নিয়ে ঘটনাবলী লেখক সুন্দরভাবে ফুটিয়েছেন, যা হয়তো ভবিষ্যতে গবেষণায় সাহায্য করবে। তিনি বলেন, ডাক্তারদের যে কাজটি করার কথা, তা করেছেন শিতাংশুদা, তাঁকে ধন্যবাদ। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, একুশে পদকপ্রাপ্ত কণ্ঠযোদ্ধা রথীন্দ্রনাথ রায়; বাপসনিউজ ও সিনিয়র সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকন; আবৃত্তিকার মিথুন আহমদ; ডাক্তার মাসুদুল হাসান; সেক্টর কমান্ডার ফোরামের সম্পাদক রেজাউল বারী বকুল; ডাক্তার মিতা গোপ; ব্রঙ্কস কমিউনিটি বোর্ডের সহ-সভাপতি শাজাহান শেখ; সুশীল সাহা ও রানা সাহা প্রমুখ। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাপ্তাহিক বাঙ্গালী সম্পাদক কৌশিক আহমদ; সাপ্তাহিক জন্মভূমি সম্পাদক রতন তালুকদার; নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা রাশেদ আহমদ; সাপ্তাহিক প্রবাস সম্পাদক মোহাম্মদ সাঈদ; সেক্টর কমান্ডার ফোরামের সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক লাভলু আনসার; সময় টিভি’র হাসানুজ্জান সাকী, প্রথম আলোর মনজুর হোসেন; এটিএন’র কানু দত্ত; সাপ্তাহিক দেশ সম্পাদক ও সাংবাদিক মিজানুর রহমান; সাংবাদিক সঞ্জীবন সরকার; ব্যবসায়ী চন্দন ও সুবর্ণা সেনগুপ্ত; পরেশ সাহা, ডাঃ প্রভাত দাস ও সবিতা দাস সুতার; কবি নিখিল রায়; ভজন সরকার; ড: শেফালী দস্তিদার; সংগঠক উত্তম সাহা; রামদাস ঘরামী; গোপাল সান্যাল; অসীম ও সপত্নীক কুমার বাবুল সাহা; বিষ্ণু গোপ; সুশীল সিনহা; বিভাস মল্লিক প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.