নিজস্ব প্রতিবেদক: 

 

কাজী আসমা আজমেরী বাংলাদেশী পাসপোর্ট নিয়ে ১৩০টি দেশ ভ্রমণ করেছেন। উড়িয়েছেন বাংলাদেশের লাল-সবুজ পতাকা। বাংলাদেশী পাসপোর্টের জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তাকে হেনস্তা হতে হয়েছে। তাকে পুরো একটা দিন জেলেও থাকতে হয়েছে। এখন তিনি ‘পাসপোর্ট গার্ল’ বা ‘গ্রীন পাসপোর্ট গার্ল’ নামে পরিচিত। আসমা আজমেরী বিশ্বের সমস্ত সবুজ পাসপোর্টধারীকে বিশ্বভ্রমণে উৎসাহিত করার চেষ্টা করে আসছেন। তিনি বলেন, ‘সংগ্রাম করে যাচ্ছি এই বাংলাদেশী পাসপোর্টে সারা বিশ্বটা ঘুরব বলে। এবং এই পাসপোর্টের ব্র্যান্ডিং করব বলে।’

 

আজ ২১ ই জুন ২০২২ মঙ্গলবার বাংলাদেশী পাসপোর্টে ১৩০ দেশ ভ্রমণকারী খুলনার গর্বিত কন্যা কাজী আসমা আজমেরীর সাথে খুলনাস্থ তার নিজ বাড়িতে সৌজন্য সাক্ষাৎ করে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ড্রীম লাইট ও আমাদের রূপসা গ্রুপের একটি প্রতিনিধি দল।

 

সৌজন্য সাক্ষাৎকালে ড্রীম লাইট স্বেচ্ছাসেবীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তোমরা মানবতার সেবায় নিয়োজিত থাবকবা আমি সবসময় মানবতার সেবায় নিয়োজিত আছো দেখে আমার খুব ভালো লাগে , তোমারা মানবসেবা চালিয়ে যাও আমি তোমাদের সাথে আছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.